Welcome To My Official Blog Site

নতুন নতুন সব আপডেট পেতে আমাদের সাইটের সাথেই থাকুন। আর কোন সমস্যা হলে আমার সাথে ফেসবুকে যোগাযোগ করবেন www.facebook.com/ShaharukhOfficial

Search This Blog

Saturday, May 23, 2020

এই ভালোবাসার শেষ কোথায়? ৮ম পর্ব ~ মোঃ শাহারুখ হোসেন

এই ভালোবাসার শেষ কোথায়?
অষ্টম পর্ব (৮ম পর্ব)

ছেলেঃ কী হলো, কাঁদছো কেন! সব ঠিক আছে তো?
মেয়েঃ কিচ্ছু ঠিক নেই।। (আরো কান্না)
ছেলেঃ ছেলে পক্ষ পছন্দ করে নি বলে কাঁদছো?
মেয়েঃ পছন্দ করে নি তাই না! এতো পছন্দ করা করছে যে আগামী সপ্তাহে বিয়ের তারিখ ঠিক করে গেছে।
ছেলেঃ কী! এতো বড় সুসংবাদ আর তুমি কাঁদছো? কংগ্রাচুলেশনস।।
মেয়েঃ ধুর! আমি বিয়ে করবো না। আমি তোমার সাথে কথা না বলে থাকবো কী করে!
ছেলেঃ ওহ এই ব্যাপার! তোমার হাসব্যান্ড কে বলে আমার সাথে মাঝেমাঝে কথা বলবে, হয়ে গেলো।
মেয়েঃ ধ্যাৎ বোঝে না কিছু। (মেয়েটা ছেলেটাকে মনে মনে ভালোবেসে ফেলেছে। সব কথা ছেলেটাকে বলতে পারলেও কিসের জন্য অদৃশ্য বাঁধা ভালোবাসি বলতে আটকাচ্ছে।)
ছেলেঃ কী বুঝবো? বোঝায় বলো।
মেয়েঃ নাহ কিছু না, ভালো থেকো। আর দোয়া করি তোমার মনের মতো মেয়েকে বিয়ে করে সুখী হও।
ছেলেঃ হুম হয়েছে। যাও বিয়ের প্রস্তুতি নেও। আর এক সপ্তাহ আছে।
মেয়েঃ বাই।। (কলটা কেটে মেয়েটা কান্না শুরু করে। ভাবে আমি কী ওকে ভালোবাসার কথা টা জানিয়ে দেবো! আবার ভাবে ও যদি আমাকে ভালো না বাসে। ও যদি অন্যকিছু মনে করে, আমাকে যদি ফিরিয়ে দেয়। আচ্ছা ওর মনে কী আছে, ও কী আমাকে ভালোবাসে নাকি শুধু একজন ভালো বন্ধু মনে করে! আমার জানতে হবে। আগে ওর মুখ থেকে জানবো তারপর আমার কথা জানাবো, না হলে কখনোই বলবো না।)

কয়েকদিন পর,
মেয়েটা কল করে ছেলেটা কে...
মেয়েঃ কী করছো?
ছেলেঃ তোমার কথা ভাবছিলাম।
মেয়েঃ আমার কথা! কী ভাবছিলে? (অনেক আগ্রহ নিয়ে)
ছেলেঃ ভাবছি, তোমার বিয়ের পর তোমার কয়টা ছেলে মেয়ে হবে। তাদের কী নাম রাখবে, আমার কথা তাদের বলবে কী না।
মেয়েঃ আমার বিয়ের পর কয়টা ছেলেমেয়ে হবে সেটা তোমার না ভাবলেও চলবে। আমি আর আমার স্বামী ভাববো।
ছেলেঃ বাহ বাহ! দুদিন আগেও বিয়ে করবো না বলে কাঁদছিলে আর এখন আমার স্বামী? বিয়ের আগেই স্বামী ভক্ত! খুব ভালো বাঙালি নারীদের স্বামীর প্রতি ভালোবাসা বেশিই থাকে।
মেয়েঃ হ্যাঁ ভালো তো বাসবো-ই। তুমিও তো বিয়ের পর বউয়ের আঁচল ধরে ঘুরে বেড়াবে।
ছেলেঃ আমার বউকে আমি অনেক ভালোবাসবো।
মেয়েঃ সে তোমার কথাবার্তায় বোঝা যায়। তা আমার কথা কী তোমার ছেলে মেয়েদের বলবে?
ছেলেঃ হ্যাঁ অবশ্যই বলবো, তোমার মতো নাকি।
মেয়েঃ সত্যি! কী বলবে?
ছেলেঃ যা যা হয়েছে সবই বলবো।
মেয়েঃ হুম, আচ্ছা একটা কথা বলবে?
ছেলেঃ কাহিনী কী! আজ পর্যন্ত তো কোনো কিছুতে পারমিশন চাও নি৷ আজ কী এমন কথা বলবে যে অনুমতি চাইছো?
মেয়েঃ নাহ তেমন কিছু না। তোমার কী কোনো পছন্দের মানুষ আছে?
ছেলেঃ পছন্দের মানুষ! হ্যাঁ আছে তো। কেন?
মেয়েঃ আছে! কে সে?
ছেলেঃ তুমি।
মেয়েঃ আমি সিরিয়াস, বলো না কাউকে পছন্দ করো? কাউকে ভালোবাসো?
ছেলেঃ হঠাৎ এই কথা কেন? কী হয়েছে?
মেয়েঃ আরে বলো না।।
ছেলেঃ গত কয়েকদিন ধরে লক্ষ্য করছি তুমি আমাকে কিছু একটা বলতে চাচ্ছো, কিন্তু বলছো না। কী বলবে নিঃসংকোচে বলে ফেলো।
মেয়েঃ নাহ কিছু না। আর তিনদিন পর আমার বিয়ে, তাই ভাবলাম তোমার পছন্দের যদি কেউ থাকে তার সাথে তোমারও বিয়ে দিতে বলতাম তোমার আম্মু কে।
ছেলেঃ তাই না! আমার বিয়ে নিয়ে তোমার ভাবতে হবে না। নিজের বিয়ে নিয়ে ভাবো। আচ্ছা একটা কথা, তোমার হবু বরকে তো দেখালে না?
মেয়েঃ ধুর আমি তাই এখনো দেখি নি।
ছেলেঃ কী বলো! তুমি না দেখেই বিয়েতে রাজি হয়েছো? দেখবে না?
মেয়েঃ না দেখবো না। ছবি দেখতে বলেছিলো, আমি রাগ করে দেখি নি।
ছেলেঃ আজব তো! ছেলে যদি দেখতে সুন্দর না হয়, চোখ ট্যারা হয়, তখন??
মেয়েঃ সে যেমনই হোক, বাসর রাতে ওকে বিষ খাইয়ে মেরে ফেলবো।
ছেলেঃ কী সাংঘাতিক মেয়ে রে বাবা! বরকে মেরে জেলে যাওয়ার শখ হয়েছে?
মেয়েঃ বরকে মেরে জেলে সারাজীবন থাকবো। তোমার কোনো সমস্যা?
ছেলেঃ নাহ, আমার আবার কী সমস্যা! আমি মাঝে মাঝে জেলে তোমার সাথে দেখা করতে যাবো।
মেয়েঃ কারো দেখা করতে আসতে হবে না। রাখো তো ফোন কথা বলতে ইচ্ছা করছে না।

বৃহস্পতিবার, মেয়েটার গায়ে হলুদ হয়ে গেলো। আগামীকাল তার বিয়ে, কিন্তু ছেলেটাকে এখনো তার মনের কথা বলতে পারে নি৷ রাতে সিন্ধান্ত নিলো এবার বলেই দেবে, যা হবার তাই হবে।
মেয়েটা ছেলেটা কে কল করলো....(চলবে)

~ মোঃ শাহারুখ হোসেন

No comments:

Post a Comment